শিরোনাম:
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

Daily Somoy BD
শুক্রবার ● ২২ মার্চ ২০২৪
প্রথম পাতা » ফিচার » ৮ এপ্রিল বিরল সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হবে বিশ্ব, কখন কোন এলাকা থেকে দেখা যাবে জেনে নিন
প্রথম পাতা » ফিচার » ৮ এপ্রিল বিরল সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হবে বিশ্ব, কখন কোন এলাকা থেকে দেখা যাবে জেনে নিন
১১৩ বার পঠিত
শুক্রবার ● ২২ মার্চ ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

৮ এপ্রিল বিরল সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হবে বিশ্ব, কখন কোন এলাকা থেকে দেখা যাবে জেনে নিন

---

বিজ্ঞান ও প্রযক্তি ডেস্ক : ৮ এপ্রিল পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ হবে। এটি বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এটি একটি বিরল সূর্যগ্রহণ হতে চলেছে। যে কারণে এই সূর্যগ্রহণ নিয়ে বিশেষ আগ্রহী জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

এই ধরনের গ্রহণ আবার হবে প্রায় ১২৫ বছর পর। তবে এই মহাজাগতিক দৃশ্য কেবলমাত্র দেখা যাবে আমেরিকা, কানাডা, মেক্সিকো, পশ্চিম ইউরোপ প্যাসিফিক, আটলান্টিক, আর্কটিক, আয়ারল্যান্ড এবং ইংল্যান্ডের উত্তর পশ্চিম অঞ্চল থেকে। দেখা যাবে না বাংলাদেশ ও ভারত থেকে।

৮ এপ্রিল হবে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ। এই সূর্যগ্রহণের ঠিক আগেই, ২৫ মার্চ হবে চন্দ্রগ্রহণ। পর পর দুটি গ্রহণ দেখা নিয়ে মুখিয়ে আছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। কারণ এবারই হতে চলেছে গত ৫০ বছরের মধ্যে দীর্ঘতম সূর্যগ্রহণ। এবার যে সূর্যগ্রহণ হবে সেইরকম দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে আরও অন্তত ১২৫ বছর।

আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা জানিয়েছে, এটাই হবে সাম্প্রতিক কালের সব থেকে দীর্ঘতম সূর্যগ্রহণ। সূর্যগ্রহণ মোট ৪ ঘণ্টা ২৫ মিনিট স্থায়ী হবে। তবে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ হবে সাড়ে ৭ মিনিট। বাংলাদেশের স্থানীয় সময় রাত ৯টা ১২ মিনিট থেকে এই গ্রহণ চলবে রাত ১টা ২৫ মিনিট পর্যন্ত।

নাসা বলছে, এই সূর্যগ্রহণ খুবই বিশেষ ধরনের। কারণ এই ঘটনা ঘটছে ৫৪ বছর পর। এর আগে ১৯৭০ সালে এইরকম সূর্যগ্রহণ হয়েছিল। এর পরে এই ঘটনা ঘটবে ২০৭৮ সালে।

তবে এইরকম দীর্ঘ পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ দেখার জন্য অপেক্ষা করতে হবে প্রায় ১২৬ বছর। এর আগে পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সাক্ষী হয়েছে ভারতের মতই বাংলাদেশও।

কিন্তু এবার বাংলাদেশের বাসিন্দাদের হতাশ হতে হবে। কারণ চলতি বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ দেখা যাবে না বাংলাদেশ থেকেও। সূর্যগ্রহণটি যে অঞ্চলে দেখা যাবে সেখানে প্রায় ৪ কোটি মানুষের বাস। একমাত্র তাঁরাই এই মহাজাগতিক এবং দুর্লভ দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন।

পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণের সময় একই রেখায় থাকে চাঁদ, সূর্য ও পৃথিবী। তখন সূর্য পুরোপুরি ঘূর্ণায়মান চাঁদের পেছনে ঢাকা পড়ে যায়। এই কারণে দিনের বেলাতেই ঘন অন্ধকার নামবে পৃথিবীতে। সেই সময়ে বিভ্রান্ত হবে নিশাচর প্রাণীরা।

যখন এই গ্রহণ হবে তখন চাঁদ পৃথিবী থেকে মাত্র ৩,৬০০০০ কিলোমিটার দূরে থাকবে। পৃথিবীর কাছাকাছি থাকার কারণে চাঁদের আকার স্বাভাবিকের চেয়ে কিছুটা বড় দেখাবে। এর ফলে এটি সূর্যকে দীর্ঘ সময়ের জন্য ঢেকে রাখবে। এমন ঘটনা আবার হবে ২১৫০ সালে।

সংগৃহীত





আর্কাইভ