শিরোনাম:
ঢাকা, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৬ আষাঢ় ১৪৩১

Daily Somoy BD
শনিবার ● ২ মার্চ ২০২৪
প্রথম পাতা » রাজনীতি » মন্ত্রী বাড়ল চট্টগ্রাম ঢাকা রাজশাহীতে পাঁচ বিভাগে মিশ্র প্রতিক্রিয়া
প্রথম পাতা » রাজনীতি » মন্ত্রী বাড়ল চট্টগ্রাম ঢাকা রাজশাহীতে পাঁচ বিভাগে মিশ্র প্রতিক্রিয়া
৭৭ বার পঠিত
শনিবার ● ২ মার্চ ২০২৪
Decrease Font Size Increase Font Size Email this Article Print Friendly Version

মন্ত্রী বাড়ল চট্টগ্রাম ঢাকা রাজশাহীতে পাঁচ বিভাগে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

---

নিজস প্রতিবেদকঃ সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে নতুন সাতজন বর্তমান মন্ত্রিসভায় যুক্ত হয়েছেন। মন্ত্রণালয় বণ্টন শেষে এখন শুধু দায়িত্ব নেওয়ার অপেক্ষা। একই বিভাগ ও জেলা থেকে মন্ত্রী পরিষদের সদস্য থাকা সত্ত্বেও আরও নতুনদের যুক্ত করায় প্রত্যাশা পূরণ হয়নি অন্যদের। ফলে দীর্ঘ হলো সেসব জেলা ও বিভাগবাসীর হতাশা।

মন্ত্রিপরিষদে আরও নতুন সদস্যকে স্থান দেওয়ায় সংশ্লিষ্ট এলাকাবাসীর উচ্ছ্বাসকে ছাপিয়ে গেছে বাদ পড়া বিভাগ ও জেলার জনগণের হতাশা এবং ক্ষোভ। বিষয়টি নিয়ে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনা করেছেন।

গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় বঙ্গভবনে প্রতিমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন ঢাকার নাহিদ ইজাহার খান, জয়পুরহাটের রোকেয়া সুলতানা, টাঙ্গাইলের শামসুন নাহার চাপা, রাজশাহীর আব্দুল ওয়াদুদ দারা, চট্টগ্রামের নজরুল ইসলাম চৌধুরী ও ওয়াসিকা আয়শা খান এবং নওগাঁর শহীদুজ্জামান সরকার। এর মধ্য ওয়াসিকা অর্থ প্রতিমন্ত্রী, চাঁপা শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী, রোকেয়া স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ও নাহিদ ইজাহারকে সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছে। শহীদুজ্জামান পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর নজরুল ইসলাম এবং পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়ের দায়িত্ব পেয়েছেন ওয়াদুদ।

মন্ত্রিসভার তালিকা থেকে দেখা গেছে, সবচেয়ে বেশি ঢাকা বিভাগ থেকে ১৫ জন এবং চট্টগ্রাম বিভাগের ৯ জনকে মন্ত্রিসভায় রাখা হয়েছিল। এ ছাড়া রংপুর বিভাগে দুজন, রাজশাহীতে দুজন, সিলেটে দুজন, ময়মনসিংহে দুজন, খুলনায় দুজন এবং বরিশাল বিভাগে দুজনকে মন্ত্রিসভায় রাখা হয়েছিল। নতুন সাতজনের অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে ঢাকা বিভাগ থেকে ১৭ জন, চট্টগ্রাম থেকে ১১ জন, রাজশাহী থেকে পাঁচে উন্নীত হলো। ময়মনসিংহ, রংপুর, বরিশাল, সিলেট ও খুলনা বিভাগ থেকে নতুন করে অন্তর্ভুক্ত না করায় সংশ্লিষ্ট বিভাগের মানুষের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া লক্ষ করা গেছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের গত তিন সরকারের আমলে জয়পুরহাট থেকে কাউকে মন্ত্রী বানানো হয়নি। এবারই প্রথম জয়পুরহাট থেকে মন্ত্রী হওয়ায় এলাকাবাসী উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে। কোথাও কোথাও মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তার বাবা পূর্ব পাকিস্তান রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার কবি মাহতাব উদ্দীনকে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী ধরে নিয়ে হত্যা করে। তিনি ২০১৯ সাল থেকে আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

অন্যদিকে, একই পরিবারের সহোদর যেমন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেয়েছেন, তেমনই মন্ত্রী পরিষদেও ভাইয়ের পর বোন যুক্ত হলেন। গত সরকারের কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাক আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য। এবার তার বোন দলের শিক্ষা সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা হয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।

টানা তিনবারের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম চৌধুরী দলের সংকটকালে দীর্ঘ চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ওয়াসিকা আয়শা খান চট্টগ্রামের আনোয়ারার ঐতিহ্যবাহী জমিদার পরিবারের সন্তান। বাবা প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আতাউর রহমান খান কায়সার ছিলেন আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও মা নিলুফার কায়সার ছিলেন চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি। বাবা আতাউর রহমান খানের মতো আয়েশাও অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন। দুজন মন্ত্রী থাকা সত্ত্বেও একই জেলা থেকে নতুন করে দুজন মন্ত্রিসভায় যুক্ত করায় মিশ্রপ্রতিক্রিয়া তৈরি হয়েছে।

টানা পঞ্চমবারের মতো সংসদ সদস্য শহীদুজ্জামান সরকার হুইপ হিসেবে দায়িত্ব পালন করলেও প্রথমবারের মতো প্রতিমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতে চলেছেন। একই জেলা থেকে পূর্ণ মন্ত্রী থাকায় একই ধরনের প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে।

নাহিদ ইজাহার ঢাকায় জন্মগ্রহণ করলেও তার পৈতৃক বাড়ি ফরিদপুরে। তার বাবা শহীদ কর্নেল খন্দকার নাজমুল হুদা বীর বিক্রমকে ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বর সংসদ প্রাঙ্গণে হত্যা করা হয়।

এর আগে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় বঙ্গভবনে নতুন প্রতিমন্ত্রীদের শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শুরু হয়। তাদের শপথবাক্য পাঠ করান রাষ্ট্রপতি মো. সাহাবুদ্দিন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব মাহবুব হোসেন। শপথ শেষে নতুন প্রতিমন্ত্রীদের মন্ত্রণালয় বণ্টন করে দেওয়া হয়।

এর আগে বিকেলে প্রজ্ঞাপন জারি করে সাতজনকে মন্ত্রিসভায় যুক্ত করে নেওয়া হয়। গত ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন হয়। নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ।

গত ১১ জানুয়ারি বঙ্গভবনে শপথ নেন নতুন মন্ত্রিসভার ৩৭ সদস্য। এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ছাড়া ৩৬ জন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী। এখন নতুন করে ৭ জন যুক্ত হওয়ায় মন্ত্রিসভার আকার দাঁড়াল ৪৪ জনে। এর মধ্যে পূর্ণ মন্ত্রী ২৫ জন এবং প্রতিমন্ত্রী ১৮ জন।





রাজনীতি এর আরও খবর

কড়াইল উন্নয়ন কমিটির নামে চাঁদাবাজি  কার্ড বাণিজ্য,, অবৈধ কর্মকাণ্ড দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ প্রয়োজন কড়াইল উন্নয়ন কমিটির নামে চাঁদাবাজি কার্ড বাণিজ্য,, অবৈধ কর্মকাণ্ড দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হস্তক্ষেপ প্রয়োজন
বেইলি রোডের আগুনে আওয়ামী লীগের নেতার মৃত্যু বেইলি রোডের আগুনে আওয়ামী লীগের নেতার মৃত্যু
নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে চট্টগ্রামে বাসদের প্রতিবাদ সমাবেশ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য মুল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে চট্টগ্রামে বাসদের প্রতিবাদ সমাবেশ
সিআইপি দিলীপ কুমারকে অপহরণ চেষ্টা ও তাঁর নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান মানিক, অপর একটি মামলায় নাগদাহ চেয়ারম্যান বিপুল সাময়িক বরখাস্ত সিআইপি দিলীপ কুমারকে অপহরণ চেষ্টা ও তাঁর নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান মানিক, অপর একটি মামলায় নাগদাহ চেয়ারম্যান বিপুল সাময়িক বরখাস্ত
সিআইপি দিলীপ কুমারকে অপহরণ চেষ্টা ও তাঁর নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান মানিক, অপর একটি মামলায় নাগদাহ চেয়ারম্যান বিপুল সাময়িক বরখাস্ত সিআইপি দিলীপ কুমারকে অপহরণ চেষ্টা ও তাঁর নেতাকর্মীদের উপর হামলার ঘটনার মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন চেয়ারম্যান মানিক, অপর একটি মামলায় নাগদাহ চেয়ারম্যান বিপুল সাময়িক বরখাস্ত
চেয়ারম্যান মানিক “ ভাঙা সাইকেল নিয়ে ট্রেনকে ধাক্কা দিতে যেয়েন না”!!!  চেয়ারম্যান মানিক “ ভাঙা সাইকেল নিয়ে ট্রেনকে ধাক্কা দিতে যেয়েন না”!!! 
বাঁশখালীতে নৌকার প্রচারণায় মাঠে নেমেছে কাথরিয়ার জাহাঙ্গীর বাঁশখালীতে নৌকার প্রচারণায় মাঠে নেমেছে কাথরিয়ার জাহাঙ্গীর
তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করায় মৌন সমলোচনার ঝড় তারাগঞ্জ উপজেলা জাসদ স্বতন্ত্র প্রার্থীকে সমর্থন করায় মৌন সমলোচনার ঝড়
মানিকগঞ্জ ১ আসনের উন্নয়নের পক্ষে কাজ করতে ঈগল প্রতীকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী- এস.এম জাহিদ মানিকগঞ্জ ১ আসনের উন্নয়নের পক্ষে কাজ করতে ঈগল প্রতীকে ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী- এস.এম জাহিদ

আর্কাইভ